তাহিরপুরে মুচলেকা দিয়ে ছাড়া পেলেন পিআইসি সভাপতি বদিউজ্জামাল

প্রকাশিত: ৭:২৯ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১১, ২০২০

তাহিরপুরে মুচলেকা দিয়ে ছাড়া পেলেন পিআইসি সভাপতি বদিউজ্জামাল

সুনামগঞ্জ সংবাদদাতা
সুনামগঞ্জে তাহিরপুর উপজেলার ফসল রক্ষা বাঁধের কাজ শুরু না করায় ইউএনওর কার্যালয়ে মুচলেকা দিয়ে ছাড়া পেলেন ৫৭নং প্রকল্পের সভাপতি বদিউজ্জামাল।

 

সোমবার সন্ধ্যা (১০ ফেব্রæয়ারি) ৭টায় বাঁধের কাজ শুরু না করার অভিযোগে বদিউজ্জামালকে তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার কার্যালয়ে ডেকে নেওয়া হয়। তিনি মঙ্গলবারের মধ্যে কাজ শেষ না করলে তার বিরুদ্ধে যেকোনো আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে মর্মে মুচলেকা দিলে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়।

 

সোমবার সরজমিন মাটিয়ান হাওরে গিয়ে দেখা যায়, হাওরের অন্যান্য প্রকল্পে ৩০ভাগ কাজ সম্পন্ন হলেও মাটিয়ান হাওরের স্লুইস গেট সংলগ্ন ৫৭নং ফসল রক্ষা বাঁধে কোনো মাটি পড়েনি। নোয়াগাঁও, জগদিসপুর এলাকার বাঁধে মাটি ফেলা হয় নি ১৭ ও ১৮নং পিআইসি। আর যেসকল বাঁধে মাটি ফেলা হয়েছে নিয়ম মানা হয় নি।

 

সোমবার মাটিয়ান হাওরের বিভিন্ন ফসল রক্ষা বাঁধ পরিদর্শনে যান সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের উপ-পরিচালক এমরান হোসেন ও তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিজেন ব্যানার্জী। এ সময় ৫৭নং পিআইসি বাঁধের কাজ শুরু না হওয়ায় তাঁরা দ্রুত কাজ শুরু করার জন্য মোবাইল ফোনে প্রকল্প সভাপতিকে নির্দেশ দেন ।

 

৫৭ নং প্রকল্পের সভাপতি বদিউজ্জামাল বলেন, মাটি কাটার জন্য আমি এসকেভেটর যোগাড় করতে পারিনি, তাই কাজ শুরু করতে বিলম্ব হচ্ছে।

 

পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ সহকারী প্রকৌশলী এমরান হোসেন বলেন, মাটিয়ান হাওর ৫৭নং প্রকল্পের কাজ শুরু করার জন্য জানুয়ারির ২০তারিখ অগ্রিম বিল ৩লক্ষ টাকা প্রদান করা হয়েছে। কাজ শুরু না করার কারণে ৬জানুয়ারি বদিউজ্জামালকে শোকজ করা হয়েয়েছিল।

 

তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিজেন ব্যানার্জী বলেন, প্রকল্প সভাপতি বদিউজ্জামাল মঙ্গলবারের মধ্যে কাজ সমাপ্তি করবেন, না করলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে মর্মে মুচলেকা দিলে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়।

সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
0Shares
সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম