শাবিতে অভিনব কায়দায় শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ

প্রকাশিত: ৭:৫৪ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৭, ২০১৯

শাবিতে অভিনব কায়দায় শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ

শাবি সংবাদদাতা
দীর্ঘদিন ধরে মৌখিকভাবে ‘নিষিদ্ধ’ থাকা রোড পেইন্টিং করার মধ্য দিয়ে প্রশাসনের বিভিন্ন অগণতান্ত্রিক সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ করছেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

শীতকালীন ছুটিতে আবাসিক হল খোলা রাখা, শিক্ষার্থীদের গণতান্ত্রিক অধিকার নিশ্চিত করাসহ ৮টি দাবিকে কেন্দ্র করে ৮ম দিনের মতো শিক্ষার্থীরা এই আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন। আন্দোলনের অংশ হিসেবে ক্যাম্পাসে দীর্ঘদিন যাবত নিষিদ্ধ রোড পেইন্টিং ও বিভিন্ন স্থানে ‘চিকা’ মারেন শিক্ষার্থীরা।

জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে রোড পেইন্টিংয়ের সংস্কৃতি চলে আসছে। এমনকি ২০১৩ সালে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার দাবিতে গড়ে ওঠা গণজাগরণ আন্দোলনের সময়ও ক্যাম্পাসজুড়ে হয়েছিল বিশাল রোড পেইন্টিং।

তবে গত দুই বছরেরও অধিক সময় ধরে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ অনেকেই রোড পেইন্টিংয়ের অনুমতি পাননি।

শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদী রোড পেইন্টিংয়ের ব্যাপারে প্রক্টর অধ্যাপক জহীর উদ্দিন আহমদ বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থী হিসেবে তাদের এ ব্যাপারে অনুমোদন নেয়ার কথা ছিল। কিন্তু তারা অনুমোদন নেয় নি। বরং তারা অর্বাচীনের মতো আচরণ করছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি চিরতরে রোড পেইন্টিং বন্ধ করে দেইনি। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটা বিভাগের প্রতিটা সেমিস্টার থেকে রোড পেইন্টিং করতে চাইলে বছরে গড়ে চারশ’র মত রোড পেইন্টিং হবে। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাভাবিক সৌন্দর্য নষ্ট হবে।’

প্রসঙ্গত, শীতকালীন ছুটিতে হল খোলা রাখার দাবিতে শিক্ষার্থীরা গত বুধবার মানববন্ধন করেন। এ সময় প্রক্টরিয়াল বডির হস্তক্ষেপে মানববন্ধনটি পণ্ড হয়ে যায়। এরই প্রেক্ষিতে শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল, সমাবেশ, মশাল মিছিল, সম্মিলিত গান, গ্রাফিতি ও রোড পেইন্টিংয়ের মাধ্যমে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন।

সূত্র : বাংলাদেশ প্রতিদিন

  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম