হাজী রাশীদ আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থী পূর্ণমিলনী অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত: ৮:৪৬ অপরাহ্ণ, জুলাই ২৭, ২০১৯

হাজী রাশীদ আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের  প্রাক্তন শিক্ষার্থী পূর্ণমিলনী অনুষ্ঠিত

কামাল বাজার হাজী রাশীদ আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের ৩৮ তম ব্যাচ (২০১১-১২) প্রাক্তন শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের এক পুনমির্লনী অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ২৬ জুলাই শনিবার দুপুরে বিদ্যালয়ের হলরুমে এ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত হয়।
বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আব্বাস আলীর সভাপতিত্বে ও উদযাপন পরিষদের সদস্য প্রাক্তন শিক্ষার্থী মাসুদ রানা চৌধুরী এবং ফারিয়া আক্তার জুহার যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ রমজান আলী। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, এই বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের দেশের বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি হবে, এটাই আমাদের স্বপ্œ। আমি আগামী মাসে হজ্বে যাচ্ছি তাই সকলের দোয়া কামনা করছি।
পুর্নমিলনী বক্তা সিলেট সেন্ট্রাল উইমেন্স কলেজ এর অধ্যক্ষ কবি কালাম আজাদ তার বক্তব্যে বলেন, জীবনে দুটি পরাজয় আমরা আনন্দ চিত্তে মেনে নিই। প্রথমটি হচ্ছে ছাত্র যদি শিক্ষকের চেয়ে বড় জ্ঞানী হয়ে আত্মপ্রকাশ করে এতে শিক্ষকের গর্ববোধ হয় এবং দ্বিতীয়টি ছেলে যদি পিতার চেয়ে মেধায় ও জ্ঞানবিদ্যায় বড় হয় এতেও বাবা পরাজয় মনে করেন না বরং গর্ববোধ করেন।
বিশেষ অতিথি বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ পোয়েটস ক্লাবের চেয়ারম্যান কবি মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী, প্রাক্তন সহকারি শিক্ষক মাওলানা আবু জাফর কাওসার আহমদ, আহসান হাবিব চৌধুরী, উপদেষ্টামন্ডলীর প্রধান মাওলানা বুরহান হোসেন, অত্র প্রতিষ্ঠানের সহকারি প্রধান শিক্ষক জামাল উদ্দিন, লাউয়াই ইসলামিয়া মাদ্রাসার সুপার রওনক আহমদ, উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য মো. আব্দুর রকিব, এনামুল হক মাক্কু, সহকারি শিক্ষক আব্দুল হাই, বিশ্বনাথ চক্রবর্তী, তপতী দেবী, হারুনুর রশীদ।
অন্যান্যের মধ্যে উদযাপন পরিষদের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন, মো. রুমন মিয়া, স্মৃতিচারণ করে বক্তব্য রাখেন লায়েক আহমদ, রোকসানা খানম শারমিন, আব্দুল আলিম প্রমুখ। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন প্রাক্তন ছাত্রী আল মারিয়া তাইবা। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন উদযাপন পরিষদের সদস্য মো. মঈন উদ্দিন।
সভায় বক্তারা বলেন, এই বিদ্যালয়ের ৩৮তম ব্যাচ এর শিক্ষার্থীরা তাদের প্রাক্তন শিক্ষকদের সম্মানে আজকের এই পুনর্মিলনী সভা একটি স্মরণীয় ঘটনা। ছাত্রদের মধ্যে সম্প্রীতি ও ভ্রাতৃত্ববোধ শিক্ষকদের প্রতি সম্মাননা প্রদর্শন ও প্রয়াত ছাত্র জামিল ও সুরমানের অকাল মৃত্যুর কথা স্মরণ করে একটি উদাহরণ সৃষ্টি রেখেছে। অনুষ্ঠানের শেষে অতিথিদের সম্মাননা প্রদান করা হয় এবং এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয়। প্রেস-বিজ্ঞপ্তি।

সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
0Shares
সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম