দু’ই বোনের নানা বাড়ি থেকে বাড়িতে ফেরা হলো না

প্রকাশিত: ৭:৫২ পূর্বাহ্ণ, মে ২, ২০১৯

দু’ই বোনের নানা বাড়ি থেকে বাড়িতে ফেরা হলো না

সোনালী সিলেট ডেস্ক ::: মায়ের সাথে নানা বাড়িতে বেড়াতে গিয়ে বাড়ি ফেরা হলোনা গোলাপগঞ্জের দু’ই বোনের। মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারাতে হলো লুবনা বেগম (১২) ও অহনা বেগম (৭) নামের দু’ই বোনকে।

নিহত দুই বোন গোলাপগঞ্জ উপজেলার ফুলবাড়ী ইউনিয়নের এওলাটিকর গ্রামের টমটম চালক শওকত আলীর মেয়ে। লুবনা বেগম সরকারি এমসি একাডেমী গোলাপগঞ্জের ষষ্ট শ্রেণীর শিক্ষার্থী বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় শওকত আলীর ৩ বছরের পুত্র সোহাগ ও স্ত্রী সেলিনা বেগম (২৬) সহ আরো ১০ জন যাত্রী আহত হন। তাদের মধ্যে শওকতের শিশু সন্তান সোহাগ (৩), স্ত্রী সেলিনা বেগম ও সাইফুলকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্য আহতদের জৈন্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

জানা যায়, দু,দিন আগে শওকত আলীর স্ত্রী দুই কন্যা সন্তান ও পুত্রকে নিয়ে তাদের নানা বাড়ি জৈন্তাপুরের ফুলবাড়িতে বেড়াতে যান। নানা বাড়ি থেকে বাড়িতে ফেরার পথে দুপুর ১২টার দিকে সিলেট-তামাবিল সড়কের জৈন্তাপুর উপজেলার বৈঠাখাল নামক স্থানে দুটি বাসের প্রতিযোগীতায় একটি বাস (সিলেট জ-০৪-০০৯৯) নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে উল্টে যায়। নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে যায়। এতে ওই দুই বোন ঘটনাস্থলেই নিহত হয়।

দু’মেয়েকে হারানোর শোকে টমটম চালক শওকত আহমদ বার বার মূর্ছা যাচ্ছেন। এছাড়াও শওকতের স্ত্রী সেলিনা বেগমের অবস্থা কিছুটা উন্নতি হলেও শিশু পুত্র সোহাগের অবস্থা আশংকাজনক বলে জানা গেছে।

সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
0Shares
সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম