পরীক্ষা কেন্দ্রে ছাত্রীর গায়ে আগুন

প্রকাশিত: ৮:৩৮ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ৭, ২০১৯

পরীক্ষা কেন্দ্রে ছাত্রীর গায়ে আগুন

সোনালী সিলেট ডেস্ক ::: ফেনীর সোনাগাজী ফাজিল মাদ্রাসা পরীক্ষা কেন্দ্রে আলিম পরীক্ষার্থী নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা ঘটনায় এক শিক্ষকসহ দুইজনকে আটক করে থানায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিশ।

শনিবার (৬ এপ্রিল) দুপুরে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাদেরকে সোনাগাজী মডেল থানায় আনা হয়।

আটক শিক্ষক ও শিক্ষার্থী হলেন- সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসার ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক আফছার হোসেন ও দগ্ধ নুসরাতের সহপাঠি আরিফুর রহমান। আরিফুর ওই মাদ্রাসা থেকে এবার নুসরাতের সঙ্গে আলিম পরীক্ষা দিচ্ছেন।

মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোয়াজ্জেম হোসেন এই তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে তাদেরকে এখনও জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। চাঞ্চল্যকর ঘটনার প্রকৃত ক্লু উদাঘটনে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনা সম্পর্কিত কোনও তথ্য পাওয়া গেছে কিনা, জানতে চাইলে তিনি বলেন- তদন্তের স্বার্থে এখনই কোনও কিছু বলা যাবে না।

এর আগে, শনিবার সকাল ১০টার দিকে সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে পরীক্ষা দিতে গিয়ে অগ্নিদগ্ধ হন পরীক্ষার্থী নুসরাত। দুর্বৃত্তরা তার শরীরে দাহ্য পদার্থ ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। এতে তার শরীরের ৭৫ শতাংশ দগ্ধ হয়। গুরুতর অবস্থায় নুসরাত বর্তমানে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

১ এপ্রিল ওই কেন্দ্রের অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ করে ওই মাদ্রাসাছাত্রী। তার পরিবারের দাবি, অধ্যক্ষের নির্দেশেই নুসরাতকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে।

সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
0Shares
সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম