দক্ষিণ সুরমা উপজেলা : ভোটাররা চান এলাকার উন্নয়ন

প্রকাশিত: ১১:২১ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ১৪, ২০১৯

দক্ষিণ সুরমা উপজেলা : ভোটাররা চান এলাকার উন্নয়ন

বিশেষ প্রতিনিধি :::  উপজেলা পরিষদের নির্বাচনের দিন যতো ঘনিয়ে আসছে, প্রার্থীদের মধ্যে বেড়ে চলেছে উৎসাহ আর উদ্দিপনা।   রাত দিন বিরামহীন প্রচারণায় ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন দক্ষিণ সুরমা উপজেলা পরিষদের প্রার্থীরা।

দক্ষিণ সুরমা উপজেলার ১০ টি ইউনিয়নের ভোটারদের মধ্যে বিরাজ করছে ভোট উৎসবের আমেজ।

চারিদিকে ব্যানার লিফলেট আর পোস্টারে সয়লাব।  দক্ষিণ সুরমা উপজেলা ঘুরে দেয়া যায়, ভোটাররা চান নতুন মুখ।  চান এলাকার উন্নয়ন।

তাদের দাবী, যে প্রার্থী উপজেলার উন্নয়ন করতে পারবে তাকেই উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান পদে বসাবেন। দক্ষিণ সুরমা উপজেলা এমনিতেই অবহেলিত।

উন্নয়ন বঞ্চিত এ জনপদের জন্য যোগ্য প্রার্থী নির্বাচনে এবার ভোটাররা ভুল করবেন না।  যে কয়জন প্রার্থী ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন, তাদের মধ্যে নবাগত মো. শামীম কবীর এ পর্যন্ত প্রচার প্রচারণায় এগিয়ে রয়েছেন।  তিনি বই প্রতীক নিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছেন এক ইউনিয়ন থেকে অপর ইউনিয়ন।

দক্ষিণ সুরমা উপজেলার ১০ টি ইউনিয়নের মধ্যে শুধু মোগলাবাজার ইউনিয়নে একাধিক প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার কারণে ভালো অবস্থানে রয়েছেন সদালাপী ও বিনয়ী মো. শামীম কবীর।  কুচাই ইউনিয়ন এলাকা থেকে একক প্রার্থী শামীম কবীর ।

আর এ জন্যই সাধারণ ভোটাররা বলছেন এবার বই প্রতীকের প্রার্থী মো. শামীম কবীর চমক দেখাতে পারেন। দক্ষিণ সুরমার উপজেলার কুচাই ইউনিয়নের আলমপুর গ্রামের সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহন করেন শামীম কবীর ।

তাঁর পিতা মো. মখন মিয়া কুচাই ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের স্বনামধন্য সাবেক মেম্মার ।  পিতার আদর্শ ও সাধারণ মানুষের অনুপ্রেরণায় তিনি দক্ষিণ সুরমা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী শামীম কবীর বলেন, তিনি বিগত ৩০ বছর যাবৎ সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও মানব সেবামূলক কর্মকান্ডে নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন।  জনসেবাকে ইবাদত বলে মনে করে তিনি উপজেলা নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যানে পদে প্রার্থী হয়েছেন।

তিনি আশাবাদী জনগণ তার সেবামূলক কার্যক্রমকে মূল্যায়ন করে ভোট দিয়ে ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত করবে।  তিনি সকলের কাছে দোয়া প্রার্থী।

সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
179Shares
সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম