ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে ঢাকায় ডা. দেবী শেঠি

প্রকাশিত: ৯:১২ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ৪, ২০১৯

ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে ঢাকায় ডা. দেবী শেঠি

হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের অবস্থা দেখতে ঢাকায় এসেছেন ভারতের নাম করা কার্ডিয়াক সার্জন দেবী প্রসাদ শেঠি।

সোমবার (৪ মার্চ) দুপুরে বঙ্গবন্ধু মেডিকেলের প্রিভেনটিভ অ্যান্ড রিহ্যাবিলিটেশন কার্ডিওলজি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. হারিসুল হক এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক মোজাফফর আহমেদ শাহজালাল বিমানবন্দরে ডা. শেঠিকে স্বাগত জানান।

অধ্যাপক ডা. হারিসুল হক জানান, আমরা তাকে সরাসরি হাসপাতালে নিয়ে যাচ্ছি। সব দেখে কার্ডিয়াক সার্জন হিসেবে তিনি তার মতামত জানাবেন।

ভারতের নারায়ণ ইন্সটিটিউট অব কার্ডিয়াক সায়েন্সেসের প্রতিষ্ঠাতা ডা. দেবী শেঠির ১৫ হাজারের বেশি অস্ত্রোপচার করার অভিজ্ঞতা রয়েছে। স্বল্প খরচে হৃদরোগের চিকিৎসা দেওয়ার উদ্যোগ নিয়ে আলোচিত এই চিকিৎসককে ২০১২ সালে পদ্মভূষণ খেতাবে ভূষিত করে ভারত সরকার।

এর আগে বেলা সোয়া ১১টার দিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসাধীন ওবায়দুল কাদেরকে দেখে বেরিয়ে সাংবাদিকদের আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, ভারতের বিখ্যাত হৃদ্‌রোগ বিশেষজ্ঞ দেবী শেঠি ঢাকায় আসছেন। আজ দুপুরে তার ঢাকায় আসার কথা।

আওয়ামী লীগের এই যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে বিএসএমএমইউতে যান। বেলা সোয়া ১১টার দিকে সেখান থেকে বেরিয়ে আসেন। পরে তিনি সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জানান, ওবায়দুল কাদেরের শারীরিক অবস্থা পর্যালোচনা করছেন তার জন্য গঠিত নিয়মিত মেডিকেল বোর্ডের সদস্যরা। আজ বেলা একটার দিকে তার সবশেষ শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে সাংবাদিকদের ব্রিফ করবেন বিএসএমএমইউয়ের উপাচার্য কনক কান্তি বড়ুয়া।

চিকিৎসকদের বরাতে হানিফ জানান, ওবায়দুল কাদেরের শারীরিক অবস্থা ভালোর দিকে। তিনি দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবেন বলে তার আশা।

প্রসঙ্গত, রোববার ভোরে হঠাৎ শ্বাসপ্রশ্বাসের সমস্যা দেখা দেয় সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের। এরপর তাকে বিএসএমএমইউতে নিয়ে যাওয়া হয়। এনজিওগ্রাম করার পর তার হার্টে তিনটি ব্লক ধরা পড়ে।

ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে রোববার রাতে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে সিঙ্গাপুর থেকে দুজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ঢাকায় আসেন। ওবায়দুল কাদেরকে দেখার পর দুই দেশের চিকিৎসকেরা জানান, তিনি এখনো শঙ্কামুক্ত নন। তবে তার শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে। আপাতত দেশেই তার চিকিৎসা চলবে। প্রয়োজন হলে তাকে সিঙ্গাপুরে নেওয়া হবে।

সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
0Shares
সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম