আর কোনো রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দেয়া সম্ভব নয়: জাতিসংঘকে বাংলাদেশ

প্রকাশিত: ২:৩৫ অপরাহ্ণ, মার্চ ১, ২০১৯

আর কোনো রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দেয়া সম্ভব নয়: জাতিসংঘকে বাংলাদেশ

সোনালী সিলেট ডেস্ক :::আর কোনো রোহিঙ্গা শরণার্থীকে আশ্রয় দেয়া সম্ভব নয় বলে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদকে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক। জানিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশে।

প্রায় ১৮ মাস আগে মিয়ানমারের রাখাইন থেকে দেশটির সেনাবাহিনীর অভিযানে ও উগ্রবাদী বৌদ্ধদের নির্যাতনে সাত লাখের বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়।

রাখাইনে পুলিশ চৌকিতে রোহিঙ্গা বিদ্রোহীদের কথিত হামলার পাল্টা এ অভিযানকে জাতিসংঘ, যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যসহ একাধিক আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন ‘গণহত্যা’ বলে অভিহিত করে। যদিও মিয়ানমার এ অভিযোগ অস্বীকার করে।

আলজাজিরা জানায়, বৃহস্পতিবার বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব শহিদুল হক জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদকে বলেন, “আমি দুঃখের সঙ্গে নিরাপত্তা পরিষদকে জানাচ্ছি যে, আর কোনো রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দেওয়ার মতো অবস্থা বাংলাদেশের নেই।”

তিনি একই সঙ্গে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে বলেন, রোহিঙ্গাদের ফেরত নেওয়ার সমঝোতার বিষয়ে দেশটির মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিয়েছে এবং নানা ধরনের প্রতিবন্ধকতামূলক মনোভাব দেখিয়েছে।

পররাষ্ট্র সচিব বলেন, রাখাইনে সহায়ক পরিবেশ সৃষ্টি না হলে একজন রোহিঙ্গাও স্বেচ্ছায় ফেরত যেতে ইচ্ছুক নন।

যদিও মিয়ানমার গত জানুয়ারি থেকে বলে আসছে, তারা রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতে প্রস্তুত। তবে রোহিঙ্গা বলছে, সেখানে তাদের নিরাপত্তা ও মিয়ানমার নাগরিক হিসেবে স্বীকৃতির নিশ্চয়তা না পেলে তারা ফেরত যাবে না।

একইভাবে যুক্তরাজ্যের জাতিসংঘ প্রতিনিধি কারেন পিয়ার্সও নিরাপত্তা পরিষদকে বলেন, “আমরা খুব হতাশ। শরণার্থীরা ফিরে যাওয়ার মতো সেখানে পরিবেশ সৃষ্টি হয়নি।”

মিয়ানমারে জাতিসংঘের প্রতিনিধি ক্রিস্টিন শেইনার বার্গেনার বলেন, রাখাইনের পরিবেশ এখনো ‘অপ্রতুল’।

তবে চীন এবং রাশিয়া এটিকে দেখছে বাংলাদেশ এবং মিয়ানমারের মধ্যে সম্পর্ক ও সমঝোতার ওপরে। চীন জানায়, এটি মিয়ানমার ও বাংলাদেশের ইস্যু। তাদেরই বের করে আনতে হবে এর সমাধান।

সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
0Shares
সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •