স্কুলছাত্র সাহেদ হত্যা মামলার গ্রেপ্তার ৭, দায় স্বীকার

প্রকাশিত: ১০:২২ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০১৯

স্কুলছাত্র সাহেদ হত্যা মামলার গ্রেপ্তার ৭, দায় স্বীকার

সোনালী সিলেট ডেস্ক :::সিলেট নগরীর হাউজিং এস্টেট এলাকায় সহপাঠীর ছুরিকাঘাতে নিহত স্কুলছাত্র সাহেদ আহমদ (১৬) হত্যা মামলায় ৭ আসামীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) গণমাধ্যমে প্রেরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ সাত জনকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়।

একই সাথে সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (গণমাধ্যম) জেদান আল মুসা স্বাক্ষরিত ঐ সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গ্রেপ্তারকৃত আসামিরা স্কুলছাত্র সাহেদ হত্যার সাথে জড়িত থাকার দায় স্বীকার করে নিয়ে আদালতে স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি প্রদান করেছে বলেও জানানো হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো, মো. মারুফ আহমেদ (১৯), মো. লিছান আহমদ (১৯), নাঈম আহমদ তানভীর (১৯), মো. মিজানুর রহমান সুমন (১৮), মো. ইমরান খান (১৯), আবু নওশর দুর্জয় (১৯) ও রাফাত আহমদ (১৮)।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, সিলেট মহানগর পুলিশের এয়ারপোর্ট থানা পুলিশের সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনারের নেতৃত্বে একদল পুলিশ নগরীর বনকলাপাড়া, হাউজিং এস্টেট, বালুর চর ও চৌকিদেখী এলাকায় এ অভিযান পরিচালনা করে আসামীদেরকে গ্রেপ্তার করে। এছাড়াও এ হত্যা মামলার অন্যান্য পলাতক আসামীদেরও গ্রেপ্তারের জন্য ব্যাপক পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলেও জানানো হয়।

এর আগে ২৪ ফেব্রুয়ারি (রোববার) রাত আটটার দিকে নগরীর হাউজিং এস্টেট এলাকার আম্বরখানা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের পিছনে সহপাঠীর ছুরিকাঘাতে স্কুলছাত্র সাহেদ আহমদ (১৬) নিহত হয়। এ ঘটনায় পরদিন সোমবার সাহেদের বড় ভাই মো. জাহেদ সাইফুল্লাহ (৩৩) ১৮ জনের নাম উল্লেখ করে আরো ৫-৬ জনকে অজ্ঞাতনামাঙ্করে মামলা দায়ের করেন।

মামলার প্রেক্ষিতে এই ৭ আসামীকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে তারা ঘটনার সাথে জড়িত থাকার বিষয়ে প্রাথমিকভাবে স্বীকার করে। পরে তাদের মেট্রোপলিটন আদালত ১ এ হাজির করা হলে মারুফ আহমেদ, রাফাত আহমদ, মিজানুর রহমান সুমন, নাইম আহমেদ তানভীর স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি প্রদান করে।

সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
0Shares
সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম