বিশ্বনাথে ৭ প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল

প্রকাশিত: ১২:১৯ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২০, ২০১৯

বিশ্বনাথে ৭ প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল

সোনালী সিলেট ডেস্ক :::  সিলেটের বিশ্বনাথে আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ২ পদে ৭ জন প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল ঘোষণা করা হয়েছে।

বুধবার (২০ ফেব্রুয়ারি) সিলেটের জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে বাছাইপর্বে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা সন্দীপ কুমার সিংহ তাদের প্রার্থীতা বাতিল করেন।

সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, গত ১৮ ফেব্রুয়ারি (সোমবার) মনোনয়ন পত্র দাখিলের শেষ দিনে বিশ্বনাথ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান, ভাইস-চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২২জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র দাখিল করেন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৭জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১০ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৫ জন প্রার্থী রয়েছেন।

তবে, বাছাই পর্বে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীদের মনোনয়ন বৈধ থাকলেও ৩ চেয়ারম্যান ও ৪ ভাইস চেয়ারম্যান পদ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে।

চেয়ারম্যান পদে বাতিল হওয়া ৩ জন হলেন, যুক্তরাজ্য বিএনপি নেতা বিশ্বনাথ এডুকেশন ট্রাস্ট ইউকের সাধারণ সম্পাদক মিছবাহ উদ্দিন, আঞ্জুমানে আল ইসলাহ বিশ্বনাথ উপজেলা শাখার সভাপতি ফয়জুল ইসলাম ও তালামীয নেতা কাজী রুহুল আমীন। তাদের মধ্যে বেদানা বেগম নামের একজনের টিপসইর মধ্যে স্বাক্ষর দেওয়ায় স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপি নেতা মিছবাহ উদ্দিনের প্রার্থীতা বাতিল করা হয়। এছাড়া ২৫০ জন ভোটারের মধ্যে একজনের স্বাক্ষরের মিল না থাকায় আল ইসলাহ ফয়জুল ইসলাম ও সঠিকভাবে ফরম পুরন না হওয়ায় কাজী রুহুল আমীনের প্রার্থীতা বাতিল করা হয়।

অন্যদিকে বাতিল হওয়া ৪ ভাইস চেয়ারম্যানের মধ্যে রয়েছেন বিশ্বনাথ উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম-আহবায়ক আলতাব হোসেন, যুক্তরাজ্য যুবলীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম শামীম, বিশ্বনাথ আওয়ামী লীগ নেতা নোয়াব আলী ও ক্রীড়া সংগঠক ফখরুল ইসলাম। তাদের মধ্যে অন্যের ঋন খেলাপির জামিন থাকায় যুবলীগ নেতা আলতাব হোসেন ও ফখরুল ইসলামের প্রার্থীতা বাতিল করা হয়। আর ১৯৬ নাম্বার ভোটারের স্বাক্ষরের জায়গায় টিপসই থাকায় আমিনুল ইসলাম শামীম ও ২২২ এনামুল হক নামের এক ভোটারের স্বাক্ষরের মিল না থাকায় নোয়াব আলীর প্রার্থীতা বাতিল করা হয়।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে সিলেটের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা সন্দীপ কুমার সিংহ এ প্রতিবেদককে বলেন, আগামী তিন দিনের মধ্যে প্রার্থীতা বৈধ করতে বাতিল হওয়া প্রার্থীরা আপিল করতে পারবেন।

সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
0Shares
সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম