রেজা কিবরিয়ার পোস্টার নিয়ে বিভ্রান্তি

প্রকাশিত: ৬:৫৪ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৮, ২০১৮

রেজা কিবরিয়ার পোস্টার নিয়ে বিভ্রান্তি

সোনালী সিলেট ডেস্ক ::: প্রথম পোস্টারটি ড. রেজা কিবরিয়ার। পরেরটি ভূয়া বলে দাবি করেছেন তিনি।

হবিগঞ্জ-১ (নবীগঞ্জ-বাহুবল) আসনের জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী ও গণফোরামের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য রেজা কিবরিয়ার নির্বাচনী পোস্টার নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়ানোর অভিযোগ উঠেছে।

রেজা কিবিরয়ার নাম, ছবি ও ধানের শীষ প্রতীক ব্যবহার করে একটি পোস্টার ছড়িয় পড়ে ফেসবুকে। যাতে এক জায়গায় লেখা রয়েছে- বিএনপি সরকারের হাতে নিহত সাবেক অর্থমন্ত্রী মরহুম শাহ এ এম এস সাহেবের সুযোগ্য সন্তান, বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ ড. রেজা কিবরিয়াকে ধানের শীষ মার্কায় ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করুন।

এই পোস্টার নিয়ে ফেসবুকে শুরু হয় আলোচনা সমালোচনা। বিএনপি সমর্থক অনেকেই এ পোস্টার নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

রেজা কিবরিয়ার নির্বাচনী এলাকায়ও এমন পোস্টার ও লিফলেট বিলি করা হয়। এনিয়ে ভোটারদের মধ্যে দেখা দেয় বিরূপ প্রতিক্রিয়া।

তবে রেজা কিবরিয়া বলেছেন, উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে এই বিতর্কিত পোস্টার ছড়ানো হচ্ছে। এটি আসলে তাঁর নির্বাচনী পোস্টার নয়।

বিএনপির এই প্রার্থী জলেন, এই ভুয়া পোস্টার ছড়ানো হচ্ছে তাঁকে নির্বাচনী মাঠে বিতর্কিত করার জন্য। তিনি এলাকাবাসীকে এ পোস্টারে বিভ্রান্ত না হয়ে সতর্ক থাকতে বলেন। পাশাপাশি তিনি বিষয়টি তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে জানান।

নবীগঞ্জ ও বাহুবল উপজেলা নিয়ে হবিগঞ্জ-১ আসন। অর্থনীতিবিদ রেজা কিবরিয়া ২০০৫ সালের ২৭ জানুয়ারি হবিগঞ্জে গ্রেনেড হামলায় নিহত সাবেক অর্থমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের নেতা শাহ এ এম এস কিবরিয়ার ছেলে। রেজা কিবরিয়া গত ১৮ নভেম্বর গণফোরামে যোগ দেন। একাদশ সংসদ নির্বাচনে তিনি হবিগঞ্জ-১ আসনে ঐক্যফ্রন্ট থেকে মনোনয়ন পান।

মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ের সময় একটি ক্রেডিট কার্ডের বিপরীতে সাড়ে ৫ হাজার টাকা বকেয়া থাকায় ঋণখেলাপি দেখিয়ে রেজা কিবরিয়ার মনোনয়নপত্র বাতিল করেছিলেন জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা। তিনি নির্বাচন কমিশনে আপিল করে প্রার্থিতা ফিরে পান। ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী হলেও একই রিটার্নিং কর্মকর্তা প্রতীক বরাদ্দের দিন রেজা কিবরিয়াকে ধানের শীষ প্রতীক বরাদ্দ দেননি। অবশ্য এক দিন পর ধানের শীষ প্রতীক বরাদ্দ পান তিনি।

সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
0Shares
সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    3
    Shares
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম