নির্বাচনে ২৬ হাজার দেশীয় পর্যবেক্ষক

প্রকাশিত: ৯:৫৩ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৬, ২০১৮

নির্বাচনে ২৬ হাজার দেশীয় পর্যবেক্ষক

সোনালী সিলেট ডেস্ক ::: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দেশের অন্তত ৬০টি সংস্থার ২৬ হাজার প্রতিনিধিকে ভোটের দিন নির্বাচন পর্যবেক্ষণের সুযোগ দিচ্ছে কমিশন।

শনিবার (১৫ ডিসেম্বর) ইসির জনসংযোগ পরিচালক যুগ্মসচিব এস এম আসাদুজ্জামান দেশি-বিদেশি পর্যবেক্ষক ও সাংবাদিকদের বিষয়ে উপস্থাপনকৃত কার্যপত্র থেকে এ তথ্য জানা যায়।

বর্তমানে ইসিতে ১১৮টি দেশীয় পর্যবেক্ষক সংস্থা নিবন্ধিত রয়েছে। এর মধ্যে ৮১টি সংস্থা এবারের নির্বাচন পর্যবেক্ষণের আবেদন করেছে।

আসাদুজ্জামান জানান, ওই ৮১টি সংস্থার ৩৪ হাজার ৬৭১ জন নির্বাচন পর্যবেক্ষণের আবেদন করেছিল। কোনো কোনো আসনে বেশি সংখ্যক আবেদন আসায় তা কমিয়ে দেওয়া হয়েছে। সারাদেশে ৩০০ আসনে ২৫ হাজার ৯২০ জনকে অনুমতি দেওয়ার পরিকল্পনা কমিশনে উপস্থাপন করা হয়েছে। ৮১টি পর্যবেক্ষক সংস্থার মধ্যে ১৪টির বিষয়ে একটি গোয়েন্দা সংস্থার প্রতিবেদন রয়েছে। এছাড়া একটি রাজনৈতিক দল থেকে চারটি সংস্থার বিষয়ে অভিযোগ করা হয়েছে।

সব দিক বিবেচনা করে কমিশন যে নির্দেশনা দেবে সে অনুযায়ী সংশ্লিষ্টদের পর্যবেক্ষণ কার্ড দেওয়া হবে বলে জানান ইসির সহকারী জনসংযোগ পরিচালক আশাদুল হক।

ইসির পরিসংখ্যান অনুযায়ী, চারটি আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানের চারজন এবং ৩৫টি দেশি সংস্থার ৮ হাজার ৮৭৪ জন দশম সংসদ নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করেন। দেশি-বিদেশি ১০ হাজার ১১৫ জন সাংবাদিক নির্বাচনের খবর সংগ্রহ করেন।

এর আগে নবম সংসদের ভোট পর্যবেক্ষণে ছিলেন বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থার ৫৯৩ জন এবং স্থানীয় ৭৫টি সংস্থার ১ লাখ ৫৯ হাজার ১১৩ জন।

ইসি কর্মকর্তারা জানান, এবার ফোরাম অব ইলেকশন ম্যানেজমেন্ট বডিস অব সাউথ এশিয়া (এফইএমবিওএসএ), এ-ওয়েব, অ্যাসোসিয়েশন অব আফ্রিকান ইলেকশন অর্থরিটিসকে (এএইএ) নির্বাচন পর্যবেক্ষণের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। ভারত, ভুটান এবং মালদ্বীপ থেকে নির্বাচন পর্যবেক্ষক দল পাঠানোর বিষয়ে নিশ্চিত করেছে।

আন্তর্জাতিক এনজিও নেটওয়ার্ক-এনফ্রেল থেকে ৩২ জন এবং নেপালের বেসরকারি সংস্থা ভিপেন্দ্র ইনিশিয়েটিভ কেন্দ্র থেকে তিনজনের পর্যবেক্ষণের আবেদন এসেছে। বাংলাদেশে ৫২টি কূটনৈতিক মিশন থেকে শ’খানেক বিদেশি এবং স্থানীয় কর্মীদের নির্বাচন পর্যবেক্ষণের আবেদন পেয়েছে ইসি। বিদেশি সংস্থার স্থানীয় কর্মীদের ‘স্থানীয় পর্যবেক্ষক’ হিসেবেই কার্ড দেওয়া হবে।

এছাড়া চারটি বিদেশি সংস্থা ৩২ জনকে পর্যবেক্ষণের সুযোগ দেওয়ার আবেদন করেছে। বিদেশি সাংবাদিকদের আবেদন এসেছে আটটি। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক্সটার্নাল পাবলিসিটি উইংয়ের মাধ্যমে বিদেশিদের আবেদন করতে হবে।

ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেছেন, ভোট কেন্দ্রে পর্যবেক্ষকরা শুধু দেখবেন, পর্যবেক্ষণ করবেন। পর্যবেক্ষক সংস্থা রিপোর্ট দেওয়ার আগে কোনো মন্তব্য করবে না। প্রয়োজনে সব শেষে সংবাদ সম্মেলন করতে পারবে এবং কমিশনে প্রতিবেদন দিতে পারবে। পর্যবেক্ষকরা কোনো লাইভ প্রচারে অংশ নিতে পারবেন না, গণমাধ্যমকে কোনো সাক্ষাৎকার দিতে পারবেন না। এমন কিছু করতে পারবেন না যেন মনে হয় তিনি কোনো প্রার্থীর পক্ষে কাজ করছেন।

নির্বাচনের দিন পর্যবেক্ষকরা ভোট কেন্দ্রে ছবি তুলতে, কোনো গোপন কক্ষে যেতে, কাউকে নির্দেশনা দিতে এবং প্রিজাইডিং, পোলিং অফিসারদের কোনো পরামর্শ দিতে পারবেন না। যদি কোনো কেন্দ্রে অনিয়ম হয়, সেটা তারা কমিশনকে বা সংস্থার নির্বাহী ব্যক্তিকে অবহিত করতে পারেন।

সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
0Shares
সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম