নগরে লাথি ও কিল-ঘুষিতে আহত কিশোরের মৃত্যু

প্রকাশিত: ৮:৪২ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৩, ২০২০

নগরে লাথি ও কিল-ঘুষিতে আহত কিশোরের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক
নগরের পশ্চিম পীরমহল্লায় ১৪ বছরের এক কিশোরকে লাথি ও কিল-ঘুষি দিয়ে প্রাণে মেরে ফেলার অভিযোগ করা হয়েছে। সোমবার (২৩ নভেম্বর) ওই কিশোর সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এ ঘটনায় নিহতের পিতা বাদি হয়ে এসএমপির এয়ারপোর্ট থানায় মামলা (নং-৫৫) দায়ের করেছেন।

 

পুলিশ জানায়, শনিবার (২১ নভেম্বর) সকাল ১১টার দিকে সিলেট নগরের এয়ারপোর্ট থানার পশ্চিম পীরমহল্লায় মো. শিরন মিয়ার ছেলে মো. লিটন মিয়া (১৪)-কে একই এলাকার কালাম আহমেদের ছেলে মো. রাহুল পারভেজ (২০) কুস্তি খেলার প্রস্তাব দেয়। এতে লিটন রাজি না হওয়ায় রাহুল ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে এবং লিটনকে লাথি ও কিল-ঘুষি মারতে থাকে। এসময় প্রতিবেশীরা রাহুলের কবল থেকে লিটনকে উদ্ধার করে বাসায় পাঠান।

 

এদিকে, বাসায় গিয়ে লিটন অসুস্থ হয়ে পড়লে পরদিন তাকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের তৃতীয় তলার ১১ নং ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার সকাল ৯টার দিকে সে মারা যায়।

 

এ ঘটনায় লিটনের পিতা মো. শিরন মিয়া বাদি হয়ে সোমবার এসএমপির এয়ারপোর্ট থানায় মামলা (নং-৫৫) দায়ের করেছেন।

 

অপরদিকে, অভিযুক্ত মো. রাহুল পারভেজকে ধরতে পুলিশ চেষ্টা চালাচ্ছে বলে জানিয়েছেন সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (মিডিয়া) বিএম আশরাফ উল্লাহ তাহের। লিটনের মৃত্যুর পর থেকে পারভেজ পলাতক রয়েছে বলে তিনি জানান।

সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
0Shares
সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম