হলুদ সাংবাদিকতা পরিহার করে সত্য প্রকাশে ব্রতী হতে হবে : অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক

প্রকাশিত: ৯:১১ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ১৩, ২০১৮

হলুদ সাংবাদিকতা পরিহার করে সত্য প্রকাশে ব্রতী হতে হবে : অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক

ডেস্ক প্রতিবেদন

সিলেটের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) আবু সাফায়াৎ মুহম্মদ শাহে দুল ইসলাম বলেছেন, সাংবাদিকরা জাতির বিবেক আর সাংবাদিকতা হচ্ছে একটি মহৎ পেশা। সাংবাদিকদের মাধ্যমে একজন মানুষ প্রতিদিনকার নানা ঘটনা ও দুর্ঘটনার খবর নিমিষেই জানতে পারে। সুতরাং, সাংবাদিকতা হতে হবে বস্তুনিষ্ঠু। প্রত্যেক রিপোর্টারকে ঘটনাস্থলে উপস্থিত থেকে সব তথ্য নিশ্চিত হয়ে তারপর সেটা প্রতিবেদন আকারে প্রকাশ করতে হবে। যারা অন্যের লেখাকে কপি পেস্ট করেন সেটাকে হলুদ সাংবাদিকতা বলে। তাই হলুদ সাংবাদিকতা পরিহার করে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশে ব্রতী হতে হবে।
তিনি শনিবার দুপুর ১২টায় সাপ্তাহিক সোনালী সিলেট এর অন-লাইন সংস্করণ সোনালী সিলেট ডট কম-এর উদ্বোধনী ও অভিষেক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। এসময় তিনি অনলাইন সংস্করণটির উত্তরোত্তর মঙ্গল কামনা করেন।
সোনালী সিলেট এর সম্পাদক ও প্রকাশক মো. তাজুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে এবং বার্তা সম্পাদক আব্দুল খালিকের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে কোরআনে পাক থেকে তেলাওয়াত করেন মাওলানা মো. গুফরানুল কারীম আল-কাদেরী, স্বাগত বক্তব্য রাখেন জালালাবাদ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সোনালী সিলেট এর প্রধান সম্পাদক মো. উস্তার আলী।
প্রধান আলোচক এর বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সদস্য ও সিলেট জেলা বারের সাবেক সভাপতি এডভোকেট এ. এফ. এম রুহুল আনাম চৌধুরী মিন্টু। তিনি বলেন, বর্তমান সরকার প্রযুক্তি ক্ষেত্রে অনেক গুরাত্বারোপ করেছে। মানুষের হাতের নাগালে ইন্টারনেট সুবিধা পৌছে দিতে সকল মোবাইল অপারেটরদের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। এখন প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের হাতে মোবাইল ও ইন্টারনেট রয়েছে। তারা মুহূর্তের মাধ্যমে পৃথিবীর যেকোন প্রান্তের খবর ঘরে বসেই নিতে পারছে। আগে এমন একটা সময় ছিল, মানুষ আজকের ঘটে যাওয়া ঘটনা পরদিন প্রিন্ট পত্রিকা হাতে নিয়ে পড়ে তারপর জানতে হয়েছে। কিন্তু এখন প্রযুক্তির কারণে মানুষ যেকোন ঘটনা তাৎক্ষণিকভাবে জেনে নিতে পারছে। আর এসবের মূলে অনলাইন নিউজ পোর্টাল বা গণমাধ্যমের যথেষ্ট ভূমিকা রয়েছে। তিনি বলেন, আশাকরি সোনালী সিলেট ডট কম দেশের পাটকদের চাহিদা মিটিয়ে একটা সময় বিদেশেও তার অবস্থান তৈরী করে নিতে পারবে।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন- দৈনিক বিজয়ের কন্ঠ’র সম্পাদক ও প্রকাশক জে. এ কাজল খান, রাজনীতিবিদ, সমাজ সেবক ও সোনালী সিলেট এর উপদেষ্টা পুলক চৌধুরী, বিশিষ্ট আইনজীবী ও নোটারী পাবলিক এডভোকেট মো. জুয়েল, দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকার সিলেট প্রতিনিধি আহসান হাবিব, সিলেট সিটি প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক মাতৃছায়া পত্রিকার সিলেট ব্যুরোপ্রধান আব্দুল হালিম সাগর, তিশা পরিবহন এর স্বত্বাধিকারী ও সোনালী সিলেট এর উপদেষ্টা দেলওয়ার হোসেন বাচ্চু।
অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- সোনালী সিলেট এর ব্যবস্থাপনা সম্পাদক শাব্বির আহমদ, ক্লাসিক পরিবহনের স্বত্বাধিকারী, সিলেট মোটর মালিক গ্র“পের সহ সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী দিলিপ কুমার দেব নাথ, সিলেট জেলা ইমা-লেগুনা সমিতি’র সভাপতি ও জেলা মালিক-শ্রমিক সমিতির সহ-সভাপতি মামুনুর রশীদ, জালালাবাদ থানা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এ. কে. এম কাওসার আহমদ, সোনালী সিলেট এর স্টাফ রিপোর্টার মো. আলমগীর, দৈনিক ভোরের পাতা পত্রিকার সিলেট ব্যুরো প্রধান মো. জয়নাল আবেদীন, দৈনিক যায়যায়দিন পত্রিকার দক্ষিণ সুরমা প্রতিনিধি সুমন আহমদ, কাতার প্রবাসী মো. ছাদ উদ্দিন, সিলেট মহানগর কৃষক লীগের অর্থ সম্পাদক ডা. মো. মুহিবুর রহমান (মুহিত), আনসার কমান্ডার শাহাব উদ্দিন, সোনালী সিলেট এর দক্ষিণ সুরমা প্রতিনিধি অপু আহমদ রাজু, ফটো সাংবাদিক সামছুদ্দীন আহমদ সমর, রাজনগর প্রতিনিধি মাসুদুর রহমান, ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি জাহাঙ্গীর আলম নয়ন ও তাজ উদ্দিন, ফরহাদ আহমদ প্রমুখ।
প্রধান অতিথি ও প্রধান আলোচককে ফুলের তোড়া দিয়ে সংবর্ধনা ও সম্মাননা স্মারক প্রদান করে সোনালী সিলেট পরিবার। এসময় তারা সম্পাদক ও প্রকাশক মো. তাজুল ইসলামসহ সকল কর্মকর্তাদের প্রতি ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
0Shares
সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  • 35
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    35
    Shares
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম