শাবিতে হিজড়াদের সাহায্যার্থে স্বপ্নোত্থান আয়োজন করছে চ্যারিটি ইভেন্ট ‘বিনিদ্র বৃহন্নলার ডাকে’

প্রকাশিত: ৫:৫২ অপরাহ্ণ, জুলাই ২২, ২০২০

শাবিতে হিজড়াদের সাহায্যার্থে স্বপ্নোত্থান আয়োজন করছে চ্যারিটি ইভেন্ট ‘বিনিদ্র বৃহন্নলার ডাকে’

সমাজের সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের শিক্ষার আলো ছড়ানো এবং তাদের মানবিকতার বিকাশ ঘটানোর লক্ষ্য নিয়ে শফিকুর রহমানের চেষ্টায় ২০০৭ সালে গড়ে ওঠে স্বপ্নোত্থান।

 

বর্তমানে করোনা মহামারীতে ‘ওদের পাশে দাঁড়াই, ওরা আমাদেরই অংশ’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে সমাজের অবহেলিত তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের সাহায্যার্থে স্বপ্নোত্থান আয়োজন করছে চ্যারিটি ইভেন্ট ‘বিনিদ্র বৃহন্নলার ডাকে’।

 

এই মহামারীকালে সমাজের সামর্থ্যবানেরা অনেক মানুষের প্রতি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেও হিজড়া জনগোষ্ঠী এই সাহায্য থেকে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই বঞ্চিত। এজন্যই তাদের পাশে দাঁড়ানোর প্রচেষ্টা স্বপ্নোত্থানের।

 

এ উদ্যোগের জন্য অর্থ সংগ্রহের উদ্দেশ্যে- ‘ওয়েভ টু চেঞ্জ’ প্রতিপাদ্য নিয়ে স্বপ্নোত্থান আয়োজন করতে যাচ্ছে অনলাইন ভিত্তিক প্রতিযোগিতামূলক অনুষ্ঠান ‘গ্রীনওয়েভ, অ্যা ন্যাশনাল কেইস স্টাডি কম্পিটিশন’।

 

যে প্রতিযোগিতায় দেশের প্রায় ৪০টিরও অধিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীরা কেইস সলভিং-এ অংশগ্রহণ করতে যাচ্ছে। অনলাইন ভিত্তিক এই প্রতিযোগিতার প্রাইজমানি হিসেবে থাকছে সর্বমোট ১৫ হাজার টাকা। চ্যাম্পিয়ন দলের জন্য থাকবে ১০ হাজার টাকা ও রানার্সআপ দল পাবে ৫ হাজার টাকা। প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী সকলের জন্যই থাকবে সনদপত্র। এছাড়া সরাসরি ও সাহায্য বা অনুদান সংগ্রহ করছে ‘স্বপ্নোত্থান’।

 

অনুদান পাঠানোর জন্য যোগাযোগ করুন : swapnotthan@gmail.com ‘স্বপ্নোত্থান’ – তার নিজস্ব কর্মধারাকে বজায় রেখে এই প্রোগ্রামের উত্তোলিত সমস্ত অর্থ সমাজের অনগ্রসর ও অবহেলিত হিজড়া স¤প্রদায়েল সার্বিক কল্যাণে ব্যয় করবে।

 

স্বপ্নোত্থানের প্রধান সমন্বয়ক বিদুৎ তালুকদার সুমন জানান, প্রথমবারের মতো স্বপ্নোত্থান তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের সাহায্য করার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের প্রবলেম সলভিং এ আগ্রহ বৃদ্ধি করার জন্য এই প্রোগ্রামটি আয়োজন করে। আমাদের ইচ্ছা আমরা ভবিষ্যতেও এমন কার্যক্রম অব্যাহত রাখব।

 

স্বপ্নোত্থানের সাধারণ সম্পাদক বিবেক রায় জানায়, তৃতীয় লিঙ্গের লোকজন কোনো ভিন গ্রহের প্রাণী নয়। তারাও আমাদের মতোই মানুষ। কিন্তু আমাদের সমাজে তারা সর্বদা হয়ে এসেছে নির্যাতিত ও সুবিধাবঞ্চিত। তাই এই দুঃসময়ে তাদের পাশে দাঁড়াতে এগিয়ে এসেছে স্বপ্নোত্থান। এই আয়োজনের পাশাপাশি আমরা সরাসরি অর্থও সংগ্রহ করতেছি।

 

স্বপ্নোত্থানের সভাপতি মো. মোছাদ্দেক হাসান বলেন, স্বপ্নোত্থান করোনার এই দুঃসময়ে শুরু থেকেই অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে এবং এরই ধারাবাহিকতায় আমরা সমাজের সুবিধাবঞ্চিত তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের সহায়তার উদ্দেশ্যে ন্যাশনাল কেইস স্টাডি কম্পিটিশন ‘গ্রীনওয়েভ’ আয়োজন করছি। তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের সামাজিকভাবে সাধারণত অচ্ছুত মনে করা হয়। ‘স্বপ্নোত্থান’ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে এই জনগোষ্ঠীর মানুষদের জীবনমান উন্নয়য়নে ভূমিকা রাখার। আশা করি আমরা সকলের সহযোগিতায় সুন্দরভাবে আমাদের কার্যক্রমকে সামনে এগিয়ে নিতে পারব। বিজ্ঞপ্তি

সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
0Shares
সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম