পারিবারিক বিরোধের জের
বিয়ানীবাজারে অটোরিকশা চালকের মৃত্যু

প্রকাশিত: ৯:০৯ অপরাহ্ণ, জুন ১৯, ২০২০

<span style='color:#C90D0D;font-size:19px;'>পারিবারিক বিরোধের জের</span> <br/> বিয়ানীবাজারে অটোরিকশা চালকের মৃত্যু

বিয়ানীবাজার সংবাদদাতা
সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলার শেওলা ইউনিয়নের ঢেউনগরে পারিবারিক বিরোধে এক সিএনজিচালিত অটোরিকশা চালকের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৮ জুন) দিবাগত রাতে এ ঘটনা ঘটেছে। খবর পেয়ে বিয়ানীবাজার থানার পুলিশ ঘটনাস্থল পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

 

মৃত ব্যক্তির নাম কয়েছ আহমদ (৫০)। তিনি শেওলা ইউনিয়নের ঢেউনগর এলাকার মুজব্বীর আলীর পুত্র। তার উপর আপন ভাই ও ভাতিজারা পারিবারিক বিরোধের জেরে হামলা করেছে বলে অভিযোগ করেছেন নিহতের ছেলে ও স্বজনরা। তার শরীরের একাধিক স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন থেকে তিন ভাইয়ের মধ্যে পারিবারিক বিরোধ চলছে। বৃহস্পতিবার জসিম উদ্দীন নামের এক ভাইয়ের সঙ্গে অপর ভাইয়ের ঘরের চাল খোলা নিয়ে বাকবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে স্থানীয় মুরুব্বিদের হস্তক্ষেপে এর মীমাংসা হয়। রাতে কয়েছ আহমদ বাড়ি ফিরলে তাদের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। বড় ভাই ও ভাতিজারা কয়েছের উপর হামলা করলে তিনি নিজ ঘরে আশ্রয় নেন। এ সময় তাকে মারতে যাওয়া ভাই ভাতিজারা ঘরের দরজা ভাঙার চেষ্টা করে। এর একপর্যায়ে ঘরের ভেতর কয়েছ আহমদ জ্ঞান হারালে স্ত্রী-সন্তানরা তাকে অচেতন অবস্থায় বিয়ানীবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

 

বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অবনী শংকর কর বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি সরেজমিনে পরিদর্শন করি। তাদের মধ্যে পারিবারিক বিরোধ ছিল। তাদের দুই পরিবারের উত্তেজনার মধ্যে নিজ ঘরের ভেতরে তিনি অসুস্থ হলে তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। আমরা ময়নাতদন্তের জন্য লাশ সিলেটে পাঠিয়েছি। তদন্ত প্রতিবেদন পেলে জানা যাবে তার মৃত্যু কিভাবে হয়েছে।

সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
0Shares
সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম