গোলাপগঞ্জে শীতের সবজি, কমেছে দাম

প্রকাশিত: ৯:০৫ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ৪, ২০১৮

গোলাপগঞ্জে শীতের সবজি, কমেছে দাম

সোনালী সিলেট ডেস্ক রিপোর্ট ::: সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলার বাজারগুলো শীতকালীন শাকসবজিতে ভরে উঠেছে, কমেছে দামও। শীতের শুরুর দিকে দাম কিছুটা বেশি হলেও এখন সবজির সরবরাহ বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে দামও কমতে শুরু করেছে। সবজি বিক্রেতারা বলছেন, শীত যত বাড়বে সরবরাহও তত বাড়বে আর কমবে দামও।

সোমবার (৩ ডিসেম্বর) সরেজমিনে উপজেলার গোলাপগঞ্জ বাজার, হেতিমগঞ্জ বাজার, ঢাকাদক্ষিণ বাজার ঘুরে এসব চিত্র দেখা যায়।

শীতের শুরুর দিকে বাঁধাকপি ও ফুলকপি প্রতি কেজি ৪০ টাকায় বিক্রি হলেও এখন প্রতি কেজি ২০ থেকে ২৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। গত দুই সপ্তাহ আগে শিমের দাম ছিল ৭০ টাকা কেজি দরে। এখন এই শিমেই কেজি ৪০ টাকায় নেমে এসেছে। টমেটো প্রতি কেজি ছিল ১০০ টাকা এখন টমেটো কেজি প্রতি বিক্রি হচ্ছে ৬০ টাকা। গাজর ছিল ১০০ থেকে ১২০ এখন ৮০ টাকা কেজি। করলা ছিল ৫০ টাকা, এখন পাওয়া যাচ্ছে ৪০ টাকায়। মুলা ছিল ৪০ টাকা কেজি, এখন ১৫-২০ টাকা কেজি দরে মুলা বিক্রি হচ্ছে।

বাজারে নতুন আলু ছিল প্রতি কেজি ১০০ টাকা। এখন তা ৮০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। এ ছাড়া ধনেপাতা ছিল ১০০-১৫০ টাকা, গতকাল তা বিক্রি হয়েছে ৮০ টাকা কেজি দরে।

একই ভাবে কমেছে মরিচের দামও। শীতে দেশের বিভিন্ন স্থানে মরিচের আবাদ হয়। এক সপ্তাহ আগেও যে মরিচ ছিল ৮০ টাকা কেজি, গতকাল তা বিক্রি হয়েছে ৪০ থেকে ৫০ টাকা কেজি দরে।

গোলাপগঞ্জ কাঁচাবাজার সঞ্চয় ও ঋণদান সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক, ময়নুল ইসলাম বলেন, বছরের এই সময় শীতকালীন সবজির দাম সাধারণত নাগালের বাইরে থাকে। কিন্তু এবার আগাম শীতের সবজি বাজারে বেশি আমদানি হওয়ায় দাম ক্রেতার নাগালের মধ্যেই রয়েছে। তারপরও বিকিকিনি অনেক কম হচ্ছে। শীতের সবজির সরবরাহ যত বাড়বে দামও আরও কমবে বলেও জানান তিনি।

উপজেলার পৌর এলাকার রনকেলী নয়াটুলের বাসিন্দা হারুন আহমদ বলেন, শীতের সবজির দাম অনেকটা কমেছে। গরীবদের জন্য এটা স্বস্তিদায়ক। এই সময়ে তারা খাবারের তালিকায় সবজি নিয়মিত খান বলে জানান।

সবজি বিক্রেতা তমছির আলী জানান, বাজারে এখন সবচেয়ে বেশি চাহিদা হচ্ছে শীতের শাকসবজির। এ জন্য তাঁরা বেশি বেশি করে এসব শাকসবজি দোকানে রাখছেন।

সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
0Shares
সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম