ওসমানী হাসপাতালেই করোনা পরীক্ষা হবে, পৌঁছেছে মেশিন

প্রকাশিত: ৪:০৪ অপরাহ্ণ, মার্চ ৩০, ২০২০

ওসমানী হাসপাতালেই করোনা পরীক্ষা হবে, পৌঁছেছে মেশিন

সোনালী সিলেট ডেস্ক
এবার সিলেটেই হবে প্রাণঘাতী করোনা পরীক্ষা। কারো শরীরে করোনা উপসর্গ দেখা দিলে পরীক্ষার জন্য রক্তের নমুনা ঢাকায় না পাঠিয়ে এবার সিলেটে পরীক্ষা করা যাবে। করোনা পরীক্ষার জন্য স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সিদ্ধান্তে বিশেষায়িত ল্যাব স্থাপনে ইতোমধ্যে মেশিন ও কিট সিলেটের ওসমানী হাসপাতালে এসে পৌঁছেছে।

 

এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন সিলেট এম.এ.জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায়। সোমবার (৩০ মার্চ) সকালে মেশিন ও ৫ শত কিট এসে ওসমানী হাসপাতালে পৌঁছায়।

 

ডাক্তার হিমাংশু লাল রায় বলেন, করোনা ল্যাব স্থাপনের জন্য মেশিন ও যন্ত্রপাতি নিয়ে একটি টিম সকালে সিলেট এসেছে। তারা মেশিনটি টেস্ট করে ওসমানী হাসপাতালে কর্মরতদের ট্রেনিং দেবেন। এরপর আগামী সপ্তাহের রোববার অথবা সোমবারের মধ্যে আমরা ল্যাবের কার্যক্রম শুরু করতে পারবো বলে আশা করছি।

 

এদিকে সকালে কিট ও মেশিন সিলেটে আসার পর থেকে ওসমানী মেডিকেল কলেজের পরিচালক, কলেজের অধ্যক্ষ, সহকারী পরিচালক, উপ-পরিচালক, পি-ডবলিউ ও হাসপাতালের সংশ্লিষ্ট বিভাগের ডাক্তার ও কর্মকর্তা কর্মচারীরা মিলা ল্যাব স্থাপনের লক্ষ্যে কাজ করছেন।

 

অপরদিকে সিলেটে কারো মধ্যে করোনার উপসর্গের কোনো লক্ষণ দেখা গেলে তাকে শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়। এখানে ১০০ শয্যার আইসোলেশন ইউনিট স্থাপন করা হয়েছে। সিলেটে বিদেশ ফেরতদের করোনা উপসর্গের লক্ষণ দেখা গেলে এই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিন্তু প্রবাসীরা আসলেই করোনাক্রান্ত কিনা, তা জানতে তার রক্তের নমুনা পাঠানো হয় ঢাকায়। তবে ল্যাব স্থাপন করা হলে সিলেটেই হবে করোনাবাইরাস সনাক্তে প্রয়োজনীয় পরীক্ষা।

 

প্রসঙ্গত, দেশের ৭টি সেন্টারে করোনা টেস্ট করানো হচ্ছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপন। রোববার (২৯ মার্চ) সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইন্সটিটিউটের (আইইডিসিআর) নিয়মিত প্রেস ব্রিফিংয়ে যুক্ত হয়ে তিনি এ তথ্য জানান।

 

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আইইডিসিআর, আইপিএইচ, ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব ল্যাবরেটরি মেডিসিন, আইসিডিডিআরবি, শিশু হাসপাতাল, চিলড্রেন হেলথ রিসার্চ ফাউন্ডেশন ও Idesh নামের একটি বিজ্ঞানভিত্তিক অলাভজনক স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান ইতিমধ্যে PCR (পলিমারেজ চেইন রিএকশন) টেস্ট করার জন্য ইতিমধ্যে প্রস্তুত আছে। এ সংখ্যা আরও বাড়ানো হবে।

 

ঢাকার বাইরে প্রতিটি বিভাগে PCR টেস্ট সম্প্রসারণের পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। চট্টগ্রাম বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অফ ট্রপিকাল মেডিসিন অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিস হাসপাতালে করোনাভাইরাস পরীক্ষা শুরু হয়েছে। রংপুর ও রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে PCR মেশিন বসানোর কাজ প্রায় শেষ। ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালেও কাজ শুরু হয়েছে। আগামী ৭ থেকে ১০ দিনের মধ্যে অন্য বিভাগগুলোতেও করোনাভাইরাস পরীক্ষা চালু হবে।

সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
0Shares
সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম