‘বিতর্কিত’ বক্তব্য : পরিকল্পনামন্ত্রীর ব্যাখ্যা

প্রকাশিত: ৭:০৫ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২০

‘বিতর্কিত’ বক্তব্য : পরিকল্পনামন্ত্রীর ব্যাখ্যা

সোনালী সিলেট ডেস্ক
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া একটি বক্তব্য নিয়ে সারা দেশে জন্ম দিয়েছে হাজারো আলোচনা-সমালোচনার। অথচ, সেই বক্তব্যের মূলে কি ছিল সে বিষয়ে ব্যাখ্যা দিয়েছেন খোদ পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। মন্ত্রীর সোজা কথাকে পেঁচিয়ে যারা ট্রল করেছেন তাদের জন্য অবশ্যই এটি সমাধানের পথ সুগম করবে বলে মনে করছেন নেটিজেনরা।

 

‘গরু কচুরিপানা খেতে পারলে আমরা কেন পারব না : পরিকল্পনামন্ত্রী’ এমন শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ করে দেশের বেশ কয়েকটি গণমাধ্যম। অনলাইনগুলোতে ভিউয়ার বাড়ানোর জন্যই এমন শিরোনামের সংবাদ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার হয় বার বার। যার ফলে খুব সহজেই শিরোনামটি ভাইরাল হয়ে যায় এবং সাথে সাথে ওঠে আসে পরিকল্পনামন্ত্রীর নামও।

 

তবে পরিকল্পনামন্ত্রী তাঁর বক্তব্যের ব্যাখ্যায় বলেছেন, ‘আমি বলেছি, কচুরিপানা নিয়ে গবেষণা করে দেখেন। এবং হাস্যরস করে বলেছি- এটা খাওয়া যায় কিনা। আমি জিজ্ঞাসা করলাম, এটা খাওয়াতে কোনো ক্ষতি আছে কিনা, একজন ভদ্রলোক বললেন- গরু ছাগল তো খায়।’

 

তিনি আরও বলেন, ‘কচুরিপানার ফুল তো আমি নিজে খেয়েছি। বেসনে ডুবিয়ে আমার মা ছোটবেলায় ভাজতেন, চেপ্টা করে। খুব চমৎকার হয়। এটা খুব মিস করি।’

 

মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলনকক্ষে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভা শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন পরিকল্পনামন্ত্রী।

 

এম এ মান্নান বলেন, ‘আগে বইতে পড়তাম কাঁঠালের আমসত্ত্ব। কাঁঠালের আমসত্ত্ব এখন বাস্তবেই আছে। আমি ওইটাই বলেছি, আর কিছু নয়।’

 

তিনি বলেন, ‘আমি কি বলেছি, বাংলার মানুষ সব কচুরিপানা খান? ননসেন্স। আচ্ছা, আমি কি বাংলার মানুষ নই, আমার মা-বাবা কি বাংলার মানুষ নন? এটা কী ধরনের কথা হলো!’

 

প্রসঙ্গত, গতকাল সোমবার শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলনকক্ষে রিসোর্স ডেভেলপমেন্ট ফোরামের অনুষ্ঠানে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘কচুরিপানা নিয়ে কিছু করা যায় কিনা, কচুরিপানার পাতা খাওয়া যায় না কোনোমতে? গরু তো খায়। গরু খেতে পারলে আমরা খেতে পারব না কেন?’

 

মন্ত্রীর এ বক্তব্য নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখা দেয় পক্ষে-বিপক্ষে আলোচনা-সমালোচনা।

সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
0Shares
সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম