ঢাকায় সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিবাদে সিলেটে মানববন্ধন

প্রকাশিত: ৬:১৮ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২০

ঢাকায় সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিবাদে সিলেটে মানববন্ধন

সোনালী সিলেট ডেস্ক
রাজধানীতে দায়িত্ব পালনকালে দুই সাংবাদিকের ওপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে ও হামলাকারিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন করেছে টিভি ক্যামেরা জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন (টিসিজেএ) সিলেট।

 

বৃহস্পতিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে সিলেট কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার প্রাঙ্গণে এই মানবন্ধনের আয়োজন করা হয়। সাংবাদিক ছাড়াও সিলেটের সুধীসমাজের প্রতিনিধিত্বশীল ব্যক্তিরা মানববন্ধনে উপস্থিত হয়ে একাত্মতা প্রকাশ করেন।

 

টিসিজেএ’র সভাপতি দিগেন সিংহের সভাপতিত্বে ও সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সাবেক যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এস সুটন সিংহের পরিচালনায় মানববন্ধনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন, সুজন সিলেটের সভাপতি ফারুক মাহমুদ চৌধুরী, সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকবাল সিদ্দিকী, সাবেক সভাপতি ইকরামুল কবির, সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রশীদ রেনু, বাপা সিলেটের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল করিম কীম, সিলেট বিভাগীয় ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েসনের সভাপতি মামুন হাসান, পরিবেশ ও হাওর উন্নয়ন সংস্থার সভাপতি কাশমির রেজা, ইমজা’র সাবেক কোষাধ্যক্ষ সাদিকুর রহমান সাকি, আইনজীবী বদরুল হক, নিউজ টুয়েন্টিফোরের রিপোর্টার সৈয়দ রাসেল প্রমুখ।

 

বক্তারা বলেন, দেশে সাংবাদিকদের ওপর নির্যাতন ধারাবাহিক ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে। এতে প্রমাণিত হয় দেশে সুশাসন অনুপস্থিত অথবা কোনো একটি সুযোগে সন্ত্রাসীচক্র গণমাধ্যমের মুখ বন্ধ করতে উঠেপড়ে লেগেছে। তারা সরকারের ভেতরে ঢুকে সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট করতে চাইছে। কিন্তু তাদের বিরুদ্ধে যদি সরকার কঠোর ব্যবস্থা না নেয় তাহলে বুঝতে হবে সরকারেরও এ ব্যাপারে সম্মতি রয়েছে।

 

সরকারের শীর্ষ নেতৃত্বের দৃষ্টি আকর্ষণ করে তারা বলেন, রাজধানীতে সাংবাদিক দম্পতি সাগর-রুনির হত্যাকাণ্ডের এখনো কোনো কূলকিনারা হয়নি। সিলেটে আদালত চত্বরে সাংবাদিকদের ওপর হামলায়ও কঠোর কোনো পদক্ষেপ আমরা দেখিনি। এ অবস্থার উন্নতি না হলে তা দেশের জন্য সুফল বয়ে আনবে না।

 

বক্তারা হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করে বলেন, শাস্তির দৃষ্টান্ত স্থাপিত হলে সন্ত্রাসীরা এমন হামলা আর সাহস পাবে না। কারণ একটি দেশের গণমাধ্যম মুক্ত না হলে সে দেশে গণতন্ত্র টিকতে পারে না।

 

মানববন্ধনে আরো উপস্থিত ছিলেন, সিনিয়র ফটো সাংবাদিক তকুল রানা, ইমজা’র সাবেক সভাপতি আশরাফুল কবির, ইমজার সহ-সভাপতি আনিস রহমান, সাধারণ সম্পাদক সজল ছত্রী, সহ-সাধারণ সম্পাদক প্রত্যুষ তালুকদার, সমকালের স্টাফ রিপোর্টার ফয়সল আহমদ বাবলু, চ্যানেল টুয়েন্টিফোরের গোলজার আহমদ, টিসিজিএ’র সাধারণ সম্পাদক ইকবাল মুন্সি, সহ-সভাপতি এস আলম আলমগীর, আরটিভি’র হোসাইন আহমদ সুজাত, সিলেট বিভাগীয় ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েসনের সাধারণ সম্পাদক শংকর দাশ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক এ এইচ আরিফ, এটিএন নিউজের অনিল পাল, যমুনা টিভির নিরানন্দ পাল, নিউজটুয়েন্টিফোরের শফি আহমদ, টিসিজেএ’র সাংগঠনিক সম্পাদক শামিম হোসেইন, বৈশাখি টিভির তারেক আহমদ রাহেল, ফটো সাংবাদিক আনিস মাহমুদ, মামুন হোসাইন, শহীদুল ইসলাম সবুজ, আবু বক্কর, প্রথম আলোর মানৈবি শুভ, সবুজ সিলেটের আজমল আলী, কামরুল হাসান, সিলেট টুডে’র শাকিলা ববি, টিটু তালুকদার প্রমুখ।

 

উল্লেখ্য, গত ১১ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর নয়াবাজারে সংবাদ সংগ্রহে গিয়ে সন্ত্রাসী হামলার শিকার হন বেসরকারি টিভি চ্যানেল নিউজটুয়েন্টিফোরের রিপোর্টার ফখরুল ইসলাম ও ক্যামেরা পারসন শেখ জালাল। সারা দেশের গণমাধ্যমকর্মীরা এ নিয়ে ক্ষোভ জানান ও শঙ্কা প্রকাশ করেন।

সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
0Shares
সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম